Afghanistan: কাবুল বিস্ফোরণ নিয়ে তালিবান, পাকিস্তানকে একযোগে তোপ দাগলেন ‘প্রেসিডেন্ট’ সালেহ্‌

 


আফগানিস্তানের তদারকি প্রেসিডেন্ট আমরুল্লা সালেহ। -ফাইল ছবি।


নিউজ ডেস্ক:  তালিবান আর পাকিস্তান— এই দুই ‘শত্রু’র সঙ্গে আপসে যেতে যে এখনও রাজি নয় আফগানিস্তানের বরাবরের প্রতিবাদী পঞ্জশির উপত্যকা, ফের তার প্রমাণ মিলল। তাঁর টুইটে কাবুলে বিস্ফোরণ নিয়ে একই সঙ্গে তালিবান আর পাকিস্তানকে কটাক্ষ করলেন পঞ্জশির উপত্যকার জনপ্রিয় নেতা আফগানিস্তানের তদারকি প্রেসিডেন্ট আমরুল্লা সালেহ্‌। পাকিস্তানকে বললেন তালিবদের ‘গুরু’ (মাস্টার) বা ‘মন্ত্রণাদাতা’। আর তালিবরা যে বৃহস্পতিবার সন্ত্রাসবাদী সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর সঙ্গে তাদের যোগসাজশ থাকার কথা অস্বীকার করেছে, তাকেও তীব্র কটাক্ষ করলেন পঞ্জশিরের নেতা।


সালেহ্‌ তাঁর টুইটে লিখেছেন, ‘খোরাসানের আইসিস (আইএস-কে)-এর সঙ্গে তালিবদের নিয়মিত যোগসাজশের প্রত্যেকটি প্রামাণ্য তথ্য আমাদের হাতে আছে। আমরা ভাল ভাবেই জানি আইএস-এর শিকড় রয়েছে তালিবদের মধ্যে। কাবুলে সক্রিয় হক্কানি নেটওয়ার্কের মধ্যেও। তালিবরা এখন স‌েই যোগসাজশের কথা অস্বীকার করছে। এ যেন অনেকটা সেই কোয়েটা সুরার সঙ্গে যোগসাজশের কথা পাকিস্তানের অস্বীকার করার মতো। তালিবরা ওদের গুরুদের কাছ থেকে ভালই শিক্ষা নিয়েছে।’



২০০১ সালে আফগানিস্তানে তালিবান উৎপাটিত হওয়ার পরেই বালুচিস্তান প্রদেশে কোয়েটা সুরা নামে একটি সন্ত্রাসবাদী সংগঠনের জন্ম হয়। অভিযোগ ওঠে, তার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রেখে চলে পাকিস্তান এবং আইএসআই।


বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনার দায় স্বীকার করেছে খোরাসানের আইএস-কে। ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা শতাধিক। জখম হয়েছেন দেড়শোরও বেশি মানুষ। তার পরেই তালিবদের নেতারা ওই সংগঠনের সঙ্গে তাদের যোগসাজশের কথা অস্বীকার করতে শুরু করেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ