Amit Shah meets TMC MPs: 'ত্রিপুরায় আর হিংসা হবে না', তৃণমূল সাংসদের সঙ্গে দেখা করে আশ্বাস অমিত শাহের

 সায়নী ঘোষকে গ্রেফতারি (Sayani Ghosh Arrest) এবং ত্রিপুরার পরিস্থিতি (Tripura Violence) নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদরা। এ দিন বিকেল চারটের পর তৃণমূল সাংসদদের সময় দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী (Amit Shah meets TMC MPs)।

বৈঠক শেষে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় জানিয়েছেন, ত্রিপুরায় আর হিংসা হবে না বলে আশ্বাস দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

সায়নী ঘোষের গ্রেফতারির প্রতিবাদে এ দিন সকাল থেকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে সময় চান তৃণমূল সাংসদরা। যদিও প্রথমে অমিত শাহ সময় দেননি। এর প্রতিবাদে নর্থ ব্লকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের বাইরে ধর্নায় বসেন তৃণমূল সাংসদরা। শেষ পর্যন্ত বিকেল চারটের পর ৬ নম্বর কৃষ্ণ মেনন মার্গে নিজের বাসভবনে তৃণমূল সাংসদদের সঙ্গে সাক্ষাতে রাজি হন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই ফোন করে তৃণমূল সাংসদদের এ কথা জানান। এর পরই অমিত শাহের বাসভবনে পৌঁছন সৌগত রায়, কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়রা।

তৃণমূল সাংসদদের তরফে ত্রিপুরার অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতির কথা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সামনে তুলে ধরা হয়। পাশাপাশি যেভাবে সায়নী ঘোষের বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করে পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করেছে, তা বেআইনি বলে অভিযোগ তুলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি জমা দেন তৃণমূল সাংসদরা। ত্রিপুরায় পুরভোট যাতে শান্তিপূর্ণ ভাবে হয়, সেই অনুরোধও জানান তৃণমূল সাংসদরা। তৃণমূল প্রার্থীদের নিরাপত্তা দেওয়া নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের কথাও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে মনে করিয়ে দেন তৃণমূল সাংসদরা।

প্রায় আধ ঘণ্টা বৈঠক শেষে অমিত শাহের বাসভবন থেকে বেরিয়ে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন যে ত্রিপুরায় আর হিংসা হবে না। শুধু তাই নয়, রবিবার সন্ধ্যাতেই ত্রিপুরার পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন বলেও তৃণমূল সাংসদদের জানিয়েছেন অমিত শাহ। তৃণমূল সাংসদদের সঙ্গে কথা বলার পর প্রয়োজনে তিনি ফের একবার ত্রিপুরা সরকারের থেকে রিপোর্ট চাইবেন বলেও জানান কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, 'উনি আশ্বস্ত করেছেন যে গোটা বিষয়টি তিনি দেখবেন। হিংসা বন্ধের কথাও বলেছেন তিনি। এর পরে যদি হিংসা বন্ধ না হয় তাহলে বুঝতে হবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কথা ওনাদেরই মুখ্যমন্ত্রী শোনেন না।'

এ দিন সন্ধ্যাতেই দিল্লি পৌঁছবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে দিনভর চাপ তৈরির পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দলের সাংসদদের সময় দেওয়ায় নিজেদের নৈতিক জয়ই দেখছে তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল শিবিরের অবশ্য দাবি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সময় না দিলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি পৌঁছে বিষয়টি নিয়ে আরও বেশি করে চাপ তৈরি করতে পারেন বুঝে গিয়েই শেষ পর্যন্ত তৃণমূল সাংসদদের সময় দিয়েছেন অমিত শাহ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ