বিচ্ছেদের মুখে বহু তারকা দম্পতি, কী উপদেশ দিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র?

 ডিজিটাল ডেস্ক: বি টাউনের মতো টলিউডেও বিচ্ছেদের সুর। আরব সাগরের পাশাপাশি গঙ্গাপারেও লেগেছে ভাঙন। একের পর এক তারকা দম্পতি তাঁদের সম্পর্কে ইতি টানছেন। আর তা নিয়ে কানাঘুষো চলছেই। বিনোদুনিয়ায় যাঁরা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন, দিদি বা সহকর্মী হিসাবে তাঁদের উপদেশ দিলেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra)।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলের উদ্দেশে উপদেশ দেন তিনি। ফেসবুকে লেখেন, “যাঁরা বিবাহবিচ্ছিন্ন বা সম্পর্ক ভেঙে আলাদা থাকেন অথবা আলাদা থাকার পরিকল্পনা করছেন তাঁদের জন্য আমার একটি উপদেশ রয়েছে। বিশেষত যাঁরা বিনোদুনিয়ার তাঁদের বলি, ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে বিশেষ কোনও তথ্য প্রকাশ্যে আনবেন না। সম্পর্ক ছেড়ে বেরিয়ে আসলে প্রাক্তন প্রেমিক কিংবা প্রেমিকাকে অসম্মান করবেন না। কারণ, কোনদিন আপনারা অনেক ভাল সময় কাটিয়েছেন। পুরনো সম্পর্ককে সম্মান করুন। নিজের অভিজ্ঞতা থেকেই একথা বলছি।” ফেসবুক পোস্টের একেবারে শেষের দিকে অভিনেত্রী লেখেন, “দিদি বা সহকর্মী হয়ে এই আবদার করতেই পারি।”

বি টাউনে সাম্প্রতিক অতীতে বিচ্ছেদের কথা ঘোষণা করেন আমির খান এবং কিরণ। টলিপাড়াতেও বিচ্ছেদের তালিকা কম লম্বা নয়। গত মাসেই গায়ক অনুপম রায় দাম্পত্যে ইতি টানেন। স্ত্রী পিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় তাঁর। ব্যক্তিগত জীবনে মতপার্থক্যের জেরে আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত বলেই জানান। বিচ্ছেদের পরেও বন্ধু থাকার কথা টুইট করে জানিয়ে দেন অনুপম।

তাঁদের বিচ্ছেদের খবর থিতু হওয়ার আগেই টলিপাড়া ফের দাম্পত্য সম্পর্ক ভাঙনের জল্পনায় সরগরম। শোনা যাচ্ছে, অভিনেত্রী দেবলীনা দত্ত এবং তথাগত মুখোপাধ্যায়ের দাম্পত্যও নাকি উষ্ণতা হারিয়েছে। চলার পথ আলাদা হয়ে গিয়েছে দু’জনের। শোনা যাচ্ছে, দেবলীনা এবং তথাগতর দাম্পত্যে ভাঙনের নেপথ্যে তৃতীয় ব্যক্তিই প্রধান কারণ। কানাঘুষো চললেও, সে বিষয়ে অবশ্য মুখ খোলেননি দু’জনের কেউই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ