KIFF: শেষ পর্যায়ে কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের প্রস্তুতি, উদ্বোধনী ছবি ‘হীরক রাজার দেশে’!

 ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব (Kolkata International Film Festival) নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) উৎসাহ উদ্দীপনা সেই ২০১১ সাল থেকেই। সীমিত সিরিয়াস দর্শকের চৌহদ্দি থেকে জনগণের জনপ্রিয় মেলায় উৎসবকে পৌঁছে দিয়েছেন তিনিই। তবে কোভিডের (COVID-19) কারণে গত বছর থেকে এই মেলা কিঞ্চিৎ প্রাণহীন। রাজ্যের বাইরের তো বটেই, এমনকি বিদেশি অতিথির অনুপস্থিতি উৎসবের জৌলুস অনেকটাই হালকা করে দিয়েছে। অবশ্য হার মানলে তো চলবে না! তাই সুরক্ষাবিধি মেনেই নতুন বছরে চলমান চিত্রের উৎসবের আয়োজন হচ্ছে। উদ্বোধনী ছবি ‘হীরক রাজার দেশে’ (Heerak Rajar Deshe)। 

Heerak Rajar Deshe

২০২২ সালের ৭ জানুয়ারি থেকে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত হবে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। একইসঙ্গে পালিত হবে বাংলার গর্ব সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবার্ষিকী। সুতরাং তাঁকে স্মরণ করেই এবারে উৎসবের উদ্বোধন হবে ‘হীরক রাজার দেশে’ ছবিটি দিয়ে। সত্যজিতের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তাঁর আরও ছ’টি ছবির দেখানো হবে উৎসবে।

Satyajit Ray

একই সঙ্গে হাঙ্গেরির বিখ্যাত পরিচালক মিকলোস ইয়াঁচর স্মরণে দেখানো হবে ‘ইলেকট্রো’। প্রয়াত বুদ্ধদেব দাশগুপ্তকে স্মরণ করা হবে তাঁর চারটি ছবি দেখিয়ে। ট্রিবিউট এবং হোমেজ বিভাগে থাকবে প্রয়াত দিলীপ কুমার, জঁ ক্লুদ কারিয়ের, জন পল বেলমন্ডো, চিদানন্দ দাশগুপ্ত, সুমিত্রা ভাবের একটি করে ছবি।

Miklos Jancso


তবে উদ্বোধন নেতাজি ইনডোরে না, নবান্নর সভাঘরে, নাকি নন্দন প্রেক্ষাগৃহে – তা এখনও নিশ্চিত নয়। পরিস্থিতি অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এবার আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় থাকছে দশটি সিনেমা। তার মধ্যে বাংলা ছবি থাকছে দু’টি। তরুণ পরিচালক ঈশান ঘোষের ‘ঝিল্লি’ ও মধুজা মুখোপাধ্যায়ের ‘Deep6’। তবে ভারতীয় ছবির প্রতিযোগিতায় কিন্তু একটিও বাংলা ছবি ঠাই পায়নি। এবার বাংলা প্যানোরমা বিভাগে থাকছে দশটি ছবি। উৎসবের সভাপতি রাজ চক্রবর্তীর (Raj Chakraborty) নতুন ছবি ‘ধর্মযুদ্ধ’ দেখানো হবে প্রয়াত অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্তর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে।

Dharmajuddho

শোনা যাচ্ছে, স্বাধীনতার ৭৫তম বছর উদযাপন উপলক্ষেও নতুন পুরনো মিলিয়ে দেশাত্মবোধক অন্তত সাতটি ছবি দেখানোর পরিকল্পনা রয়েছে। আগে ছিল হয়েছিল, করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকলে জ্যুরি সদস্যদের মধ্যে থেকে কয়েকজন বিদেশি অতিথিকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। সম্ভবত সেই সিদ্ধান্ত বাতিল হওয়ার পথে। এবার আন্তর্জাতিক ছবির জ্যুরি সভাপতি হচ্ছেন ফিলিপিন্সের বিখ্যাত পরিচালক লাভ ডিয়াজ। সঙ্গে থাকছেন মরক্কো এবং তিউনিশিয়ার দু’জন। এবার ভারতীয় ছবির সেরা বাছাই করবেনও বিদেশেরাই। তিনজন বিদেশি নাকি থাকছেন এই দলে।

Lav Diaz
ফিলিপিন্সের বিখ্যাত পরিচালক লাভ ডিয়াজ

সত্যজিৎ রায় (Satyajit Ray) স্মারক বক্তৃতা কে দেবেন, এখনও নাকি নিশ্চিত করা যায়নি। দু’চার দিনের মধ্যেই স্থির হয়ে যাবে। পরিচালক রাজ চক্রবর্তী গত বছরের মতোই টালিগঞ্জের নামি-দামি, ছোট-বড় সব শিল্পী ও কলাকুশলীদের নিয়ে উৎসবের ক’টা দিন আলোচনায়-আড্ডায় উৎসব চত্বর জমজমাট রাখার প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেই খবর। হ্যাঁ, এটা অস্বীকার করা যাবে না, গতবারের উৎসবে রাজই ছিলেন মধ্যমণি। এবারেও তাঁর উৎসাহে, উদ্দীপনায়, মেজাজে কোনও ঘাটতি নেই।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ