Ticker

6/recent/ticker-posts

Biriyani: বিরিয়ানি তো খান, কিন্তু জানেন কি কেন লাল কাপড়েই মোড়া থাকে সমস্ত বিরিয়ানির হাঁড়ি?

 


মটন, চিকেন, আন্ডা, আলু বা ভেজ...বিরিয়ানির পাত্রটি প্রায় সব দোকানেই একটা লাল কাপড়ে মোড়া থাকে। কিন্তু লাল কাপড়েই কেন মোড়া থাকে? অন্য কোনও রং-এর কাপড়ে নয় কেন? জানুন আসল কারণ

ওয়াজেদ আলি শাহ-র হাত ধরে কলকাতায় প্রথম বিরিয়ানির প্রবেশ আর একেবারেই ভিনদেশী এই পদটাকে মন-প্রাণ দিয়ে ভালবেসে ফেলল আপামর বাঙালি! লম্বা-লম্বা চালের ভাত, তুলতুলে মাংস আর নধর একখানা আলু... উফফ একেই কি কয় স্বর্গসুখ! কিন্তু একটা জিনিস লক্ষ্য করেছেন, বিরিয়ানি তা সে যেমনই হোক, মটন, চিকেন, আন্ডা, আলু বা ভেজ...বিরিয়ানির পাত্রটি প্রায় সব দোকানেই একটা লাল কাপড়ে মোড়া থাকে। কিন্তু লাল কাপড়েই কেন মোড়া থাকে? অন্য কোনও রং-এর কাপড়ে নয় কেন?


ওয়াজেদ আলি শাহ-র হাত ধরে কলকাতায় প্রথম বিরিয়ানির প্রবেশ আর একেবারেই ভিনদেশী এই পদটাকে মন-প্রাণ দিয়ে ভালবেসে ফেলল আপামর বাঙালি! লম্বা-লম্বা চালের ভাত, তুলতুলে মাংস আর নধর একখানা আলু... উফফ একেই কি কয় স্বর্গসুখ! কিন্তু একটা জিনিস লক্ষ্য করেছেন, বিরিয়ানি তা সে যেমনই হোক, মটন, চিকেন, আন্ডা, আলু বা ভেজ...বিরিয়ানির পাত্রটি প্রায় সব দোকানেই একটা লাল কাপড়ে মোড়া থাকে। কিন্তু লাল কাপড়েই কেন মোড়া থাকে? অন্য কোনও রং-এর কাপড়ে নয় কেন?



ইতিহাস ঘাঁটলে জানা যায়, সম্রাট হুমায়ুনের খাদ্য পরিবেশনে ‘দরবারি রীতি’ অনুযায়ী, রুপোলি পাত্রের খাবারগুলির জন্য লাল কাপড় আর অন্য ধাতব বা চিনামাটির পাত্রগুলিকে সাদা কাপড়ে ঢেকে নিয়ে আসা হতো। 

ইতিহাস ঘাঁটলে জানা যায়, সম্রাট হুমায়ুনের খাদ্য পরিবেশনে ‘দরবারি রীতি’ অনুযায়ী, রুপোলি পাত্রের খাবারগুলির জন্য লাল কাপড় আর অন্য ধাতব বা চিনামাটির পাত্রগুলিকে সাদা কাপড়ে ঢেকে নিয়ে আসা হতো।

ইতিহাস ঘাঁটলে জানা যায়, সম্রাট হুমায়ুনের খাদ্য পরিবেশনে ‘দরবারি রীতি’ অনুযায়ী, রুপোলি পাত্রের খাবারগুলির জন্য লাল কাপড় আর অন্য ধাতব বা চিনামাটির পাত্রগুলিকে সাদা কাপড়ে ঢেকে নিয়ে আসা হত। 3/ 5

ইতিহাস ঘাঁটলে জানা যায়, সম্রাট হুমায়ুনের খাদ্য পরিবেশনে ‘দরবারি রীতি’ অনুযায়ী, রুপোলি পাত্রের খাবারগুলির জন্য লাল কাপড় আর অন্য ধাতব বা চিনামাটির পাত্রগুলিকে সাদা কাপড়ে ঢেকে নিয়ে আসা হত।

পরবর্তিকালে মুঘল দরবারেও এই রীতি অনুসরণ করা হয়। খাদ্য পরিবেশনের এই রীতি ও রঙের ব্যবহার লখনউয়ের নবাবরাও অনুসরণ করতেন। সেই থেকেই বিরিয়ানির পাত্র লাল কাপড়ে ঢাকার রীতি চলে আসছে। 4/ 5

পরবর্তিকালে মুঘল দরবারেও এই রীতি অনুসরণ করা হয়। খাদ্য পরিবেশনের এই রীতি ও রঙের ব্যবহার লখনউয়ের নবাবরাও অনুসরণ করতেন। সেই থেকেই বিরিয়ানির পাত্র লাল কাপড়ে ঢাকার রীতি চলে আসছে।

তবে নানা মুণির নানা মত! অনেকেই মনে করেন, ইতিহাস বা ঐতিহ্যের রীতি মেনে নয়, ব্যবসার খাতিরে ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই বিরিয়ানির পাত্র লাল কাপড়ে মুড়ে রাখা হয়।লাল রং দূর থেকেই ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে।5/ 5

তবে নানা মুণির নানা মত! অনেকেই মনে করেন, ইতিহাস বা ঐতিহ্যের রীতি মেনে নয়, ব্যবসার খাতিরে ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করতেই বিরিয়ানির পাত্র লাল কাপড়ে মুড়ে রাখা হয়।লাল রং দূর থেকেই ক্রেতার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে।




একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ