শিয়ালদহ আদালতে লিফট বিকল, হেঁটেই সাততলা উঠতে হচ্ছে বিচারকদের

গোবিন্দ রায়: প্রায় এক মাস ধরে অকেজো লিফট। শিয়ালদহ আদালতের (Sealdah Court) বিচারকদের সিঁড়ি ভেঙে হেঁটে উঠতে হচ্ছে সাততলা। যার জেরে বিপাকে বিচারকরা। অভিযোগ, রক্ষণাবেক্ষণের অভাব ছিল আগেই। এবার একেবারেই বিকল লিফট।

গত ১০ নভেম্বর শেষবার লিফট করে চারতলা পর্যন্ত উঠেছেন বলে জানান শিয়ালদহ আদালতের এক বিচারক। কিন্তু তারপর থেকেই বিকল লিফট। ফলে এক প্রকার হেঁটেই দু’তলা, তিনতলা, চারতলা পর্যন্ত উঠতে হচ্ছে বিচারকদের। তাঁদের মধ্যে কয়েকজন অবশ্য আইনজীবী ও বিচারপ্রার্থীদের জন্য বরাদ্দ লিফট ব্যবহার করছেন। কিন্তু শারীরিকভাবে অসুস্থ বিচারকদের এখন আদালতে আসাই আতঙ্ক হয়ে উঠেছে।


জানা গিয়েছে, আদালতে আসা আইনজীবী, আদালতকর্মী ও মক্কেলদের জন্য একটি নির্দিষ্ট লিফট রয়েছে। সেটাও বিকল হয় মাঝেমধ্যেই। ঠিক হতে প্রচুর সময় লাগে। বর্তমানে যে লিফটগুলো চালু আছে সেখানেও বিকল আলো ও পাখা। এবার প্রায় এক মাস ধরে বিচারকরা যে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন তাও পোহাতে হয় আইনজীবী থেকে বিচারপ্রার্থীদের। লিফট সরানোর জন্য বারংবার তাগাদা দিয়েও কাজ না হওয়ায় হতাশ আদলতের প্রশাসনিক আধিকারিকরাও। যদিও এনিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে তাঁরা মুখ খুলতে রাজি নন।

আইনজীবীদের একাংশের মতে, প্রায় এক মাস ধরে শিয়ালদহের মতো গুরুত্বপূর্ণ আদালতে বিচারকদের লিফট খারাপ। অর্থাৎ পরিকাঠামো নিয়ে দুর্বলতা কোন জায়গায় রয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এই বিচারকদের মধ্যে অনেকেই অসুস্থ। হেঁটে উপরতলার এজলাসে উঠতে সমস্যায় পড়ছেন তাঁরা।

কিন্তু কেন এই অবস্থা? এনিয়ে অবশ্য নির্দিষ্ট কারণ জানাতে পারেননি লিফটম্যান কোমল মোদক। তিনি জানান, এই লিফট সারাইয়ের দায়িত্ব পিডব্লিউডি-এর। তবে এনিয়ে পিডব্লিউডির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ করা যায়নি।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ