Manipur Attack: কেন সেনা কনভয়ে হামলা, দায় স্বীকার করে জানাল মণিপুরের ২টি জঙ্গি সংগঠন

 মণিপুরে সেনা কনভয় হামলার

(Manipur Terrorist Attack) ঘটনার দায় স্বীকার করেছে দুটি সন্ত্রাসবাদী সংগঠন (2 terrorist organisation)। শনিবার সকালে জঙ্গি হামলায় অসম রাইফেলসের (Assam Rifles)


কমান্ডিং অফিসার, তাঁর স্ত্রী ও পুত্র সহ ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, পিপিলস লিবারেশন আর্মি (PLA) ও মণিপুর নাগা পিপলস ফ্রন্ট (MNPF) একসঙ্গে একটি বিবৃতি জারি করেছে।

সেখানে মণিপুরের চুরাচাঁদপুর জেলায় হামলার চালানোর দায় স্বীকার করে নিয়েছে তারা।

শনিবার সকালে জঙ্গি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন অসম রাইফেলসের খুগা ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং কর্নেল বিল্পব ত্রিপাঠি তাঁর সহকর্মী রাইফেলম্যান এনকে নায়েক, সুমন স্বর্গিয়ারি, আরপি মীনা ও শ্যামল দাস। হামলায় মারা গিয়েছিলেন বিল্পব ত্রিপাঠির স্ত্রী ও তাঁদের মাত্র ৬ বছরের পুত্র সন্তানও। শনিবারই সকাল ১০টা হামলার ঘটনা ঘটে। জঙ্গিরা প্রথমে সিঙ্গেল লেন রাস্তায় একটি ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস বিস্ফোরণ ঘটায়। পরে কনভয়ের ওপর গুলি চালায়। বিপ্লব ত্রিপাঠি ও তাঁর কর্মীরা যখন ফরোয়ার্ড কোম্পানি বেস থেকে ব্যাটালিয়ন সদর দফতর থেকে ফিরছিলেন, সেই সময়ই এই হামলার ঘটনা ঘটে।

Jagadhatri puja 2021: জামালপুরের চট্টোপাধ্যায় বাড়িতে জগদ্ধাত্রীর সঙ্গে থাকেন নারদ ও ব্যাসদেব

Maoist Killed: গাড়চিরোলির জঙ্গলে পুলিশের সঙ্গে গুলির লড়াই, নিহত ২৬ মাওবাদী

সংবাদ সংস্থার পিটিআই জানিয়েছে শনিবার সন্ধ্য দুই জঙ্গি সংঘগঠন জারি করা যৌথ বিবৃতিতে বলেছে, 'আমরা আমাদের জনগণকে রক্ষা করার জন্য ও আমাদের জনগণের অধিকার দমন করার প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করছি।' তবে সেনা কনভয়ে সেনা কর্তার ছেলে যে উপস্থিত থাকবে তা তারা জানতা বলেও জানিয়েছে। পাশাপাশি জঙ্গি সংগঠন বলেছে, তাদের অধিকার ও সার্বভৌমত্ব না পাওয়া পর্যন্ত তারা হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না।

মণিপুরের এই হামলার নিন্দা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেছেন জওয়ানদের এই আত্মত্যাগ কখনই বিফলে যাবে না। অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে এত হাত নিয়ে রাহুল গান্ধী নিহত সেনা জওয়ান ও সেনা কর্তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এই ঘটনার নিন্দা করে জানিয়েছেন দোষীদের শান্তি দেওয়া হবে। তাঁর দাবি হামলাকারীরা মায়ানমার থেকে এই দেশে এসে সেন কনভয় উড়িয়ে দেয়। আহত এক সেনা জওয়ানকে দেখতে তিনি হাসপাতালেও গিয়েছিলেন।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ