Newtown Child Death: মর্মান্তিক! দড়ি ধরে ছিল দাঁড়িয়ে ছিল খুদে, গাছ পড়ার সময় দড়ির টানে ছিটকে পড়ে মৃত্যু একরত্তির

রঞ্জিত সাউ, কলকাতা:গাছ কাটার (Tree Cutting) সময়, দড়ি ধরে ছিল ছোট্ট শিশু। গাছ পড়ার সময় দড়ির টানে ছিটকে গিয়ে ধাক্কা খেয়ে মৃত্যু হল শিশুর। মর্মান্তিক ঘটনা নিউটাউনের (Newtown) হাতিয়াড়া মাঝেরপাড়ায়। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, নিয়ম মেনে কাজ না করায় চলে গেল তরতাজা প্রাণ।নারকেল গাছ কাটার সময় মর্মান্তিক ঘটনা (Accident)। গাছ কাটার দড়ি ছিটকে অনেকটা দূরে গিয়ে দেওয়ালে ধাক্কা খেল শিশু। যেন উড়িয়ে নিয়ে গেল দড়ি। হাড় হিম করা ঘটনার সাক্ষী হলেন নিউটাউনের হাতিয়াড়া (Hatiyara) মাঝেরপাড়ার (Majherpara) বাসিন্দারা।ভাইরাল ভিডিও (Viral Video) ঘিরে তোলপাড় পড়ে গেছে গোটা এলাকায়। ভিডিওতে দেখা যায় একটি নারকেল গাছ কাটা চলছিল। সেই সময়, দড়ি ধরে গাছ কাটা দেখছিল একটি শিশু। গুড়ি থেকে যখন গাছ পড়ছে তখন আচমকাই দড়ির টানে অনেকটা দূরে ছিটকে দেওয়ালে ধাক্কা খেয়ে জ্ঞান হারায় ৯ বছরের রোহান আলি মণ্ডল। পরে হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।প্রত্যক্ষদর্শী সাইমা বিবি জানিয়েছেন, বাচ্চাটাকে রশির টানে উড়িয়ে নিয়ে গেল। গাছটা আস্ত কাটার জন্য হয়েছে। চোখের সামনে মারা গেল। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, নিয়ম না মেনে কাজ করায় চোখের সামনে নিভে গেল প্রাণ।মৃতের আত্মীয় মইদুল মণ্ডলের কথায়, বেআইনিভাবে গাছ কাটা হচ্ছিল। নারকেলগাছ যখন পড়ছে তখন দড়ি ধরে দাঁড়িয়ে ছিল। ওদের জন্য ক্ষতি হয়ে গেল। স্থানীয় সূত্রে খবর, বহুতল তৈরির জন্য গাছ কাটা চলছিল। ঘটনার পর জমির মালিক খোঁজ নেয়নি বলে অভিযোগ মৃতের পরিজনদের।উল্লেখ্য, কান্দি থানার অন্তর্গত গাঁতলা গ্রামে সকাল আটটার সময় মহিলার বাবার বাড়িতে ওই মহিলা এবং তার দুই শিশু কন্যা ঘরের মধ্যে শুয়েছিল। সে সময় আগুনে পুড়ে তাঁদের মৃত্যু হয়। পরিবার সুত্রে জানা গেছে গাঁতলা গ্রামের দয়াল ঘোষের মেয়ে লক্ষ্মী ঘোষের গত পাঁচ বছর আগে বিয়ে হয়েছিল, নবগ্রাম থানার অন্তর্গত ঘোষপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বীরবল ঘোষের সঙ্গে। গত দু বছর আগে শ্বশুর বাড়ির পরিবারের সঙ্গে মনোমালিন্য, বিবাদের কারণে লক্ষী ঘোষ দুই মেয়েকে নিয়ে পিতার বাড়িতে থাকত। মাঝে মধ্যে শ্বশুর বাড়ির সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সেভাবে মিমাংসা না হওয়ার ফলে দুই মেয়েকে নিয়ে দুশ্চিন্তা মধ্যেই দিন কাটাতেন লক্ষ্মী ঘোষ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ