কলেজ পড়ুয়াদের সামাজিক কাজে উদ্বুদ্ধ করতে হাজি মহসিন কলেজে বিশেষ আলোচনা সভা চন্দননগর পুলিশের

নিজস্ব সংবাদদাতা: শহরের অনেক বয়স্ক মানুষ যারা একাকি থাকেন। একা থাকার সমস্যা অনেক। জরুরি ওষুধ আনা থেকে বিদ্যুৎ এর বিল জমা সবই করতে হয়। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে দেখার কেউ থাকেনা। তাদের অর্থনৈতিক চাহিদার থেকেও সামাজিক নিরাপত্তার অভাব দেখা যায়।

সেই সব বৃদ্ধ বৃদ্ধাদের পাশে দাঁড়াতে ব্যবস্থা গ্রহন করল চন্দননগর পুলিশ। আগেই চন্দননগর কমিশনারেট এলাকায় চালু হয়েছিল 'স্পর্শ'। এবার কলেজ পড়ুয়াদের সামাজিক কাজে অর্ন্তভুক্ত করার ভাবনা নিয়েছে চন্দননগর পুলিশ।

২০২২ সালের জানুয়ারী মাসে শুরু হবে এর কাজ। বয়স্ক মানুষদের সাহায্যে এগিয়ে আসবে কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা।তাদের নিয়ে একটি হোয়াটসঅ্যাপ প্লাটফর্ম চালু  করে দেওয়া হবে বলে জানান চন্দননগর পুলিশ কমিশনার অর্নব ঘোষ।কলেজ পড়ুয়াদের সাথে প্রবীণদের গ্রুপ থাকবে সেখানে তাদের সমস্যা বা প্রয়োজনের কথা জানাবেন প্রবীণরা।

সেই এলাকায় থাকা ছাত্র-ছাত্রী প্রয়োজনে তাদের কাছে পৌঁছে যাবে পুলিশকে জানাবে। একাকি থাকা প্রবীণরা দুষ্কৃতিদের সফট টার্গেট। এর ফলে একদিকে যেমন শহরের প্রবীণ নাগরিকদের সাহায্য করা যাবে তেমনি নিয়মিত মনিটারিং এর ফলে অপরাধ ঠেকানো যাবে বলে মনে করছে চন্দননগর পুলিশ। কোনো এলাকার সমাজবিরোধী কার্যকলাপ দেখলে তার সম্বন্ধেও সতর্ক থাকতে পারবেন।

ছাত্র-ছাত্রীদের সামাজিক দায়বদ্ধতা বাড়াতে হবে বলেও জানান পুলিশ আধিকারীকরা। পড়ুয়ারা মোবাইল ব্যবহার করে প্রায় সবাই তারা যাতে সাইবার ক্রাইম সম্বন্ধে ওয়াকিবহাল থাকে সেদিকেও জোর দিতে বলা হয়েছে।9073390030 নম্বরে হোয়াটসঅ্যাপ চালু করেছে চন্দননগর পুলিশ যেখানে অভিযোগ বা মেসেজ করতে পারবে কলেজ ছাত্ররা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ