Ticker

6/recent/ticker-posts

Begampur: শিশু মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা! চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ, তদন্তে চন্ডীতলা থানার পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা: ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ চন্ডীতলার বেসরকারী নার্সিংহোমের বিরুদ্ধে,থানায় অভিযোগ দায়ের পরিবারের।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে,চন্ডীতলার বেগমপুরে একটি বেসরকারী নার্সিংহোমে রবিবার ভর্তি করা হয় ইশা সরকারকে।বছর দশেকের ইশার বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার ঘোলা থানার সোদপুর অপূর্বনগরে।গত ২১ তারিখে ইশা সাইকেল থেকে পরে গিয়ে বাঁদিকের কলারবোনে চির ধরে।সেদিনই স্থানীয় অস্থিরোগের চিকিৎসক।

সুদীপ্ত পোদ্দারকে দেখালে চিকিৎসক পরামর্শ দেন বেগমপুরে নার্সিংহোমে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে অস্ত্রপচার করে দেবেন।সেই মত রবিবার ভর্তি করার পর সোমবার বারোটা নাগাদ অস্ত্রপচার শুরু হয়।দুটোর সময় অস্ত্রপচার শেষ হলেও ইশাকে দেখতে দেওয়া হয়নি তার পরিবারকে।জিজ্ঞাসা করলে বলা হয় হার্ট অ্যাটাক হয়েছে ভেন্টিলেশানে দিতে হবে।ব্যবস্থা করুন।ইশার বাবা গোলক সরকার জানান,আমরা কোথায় খুঁজব বুঝে উঠতে পারিনা।তখন নার্সিংহোম থেকে বলা হয় অপেক্ষা করতে।অবশেষে সন্ধা ছটার সময় জানানো হয় মৃত্যুর খবর।আমাদের কাছে গিয়ে দেখতে দেওয়া হয়নি।দূর থেকে দেখি পাম্প করছে।ভুল চিকিৎসায় মেয়েটাকে মেরে ফেলল।চন্ডীতলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন গোলক সরকার।

চিকিৎসক সুদীপ্ত পোদ্দার জানান,আমার কাছে নিয়ে আসার পর দেখে বুঝেছিলাম অস্ত্রপচার করতে হবে।তাই বলেছিলাম ভর্তি করতে।সেইমত পরিবার খোঁজ খবর নিয়ে ভর্তি করে। অস্ত্রপচারের পর ওটিতেই একবার হার্ট অ্যাটাক করে রোগীর।সেটা কোনো ভাবে আটকানো গিয়েছিল আইসিইউতে দেবার পর দ্বিতীয়বার হয় তখন আর কিছু করার ছিল না।চিকিৎসায় গাফিলতি বা ভুলের কথা অস্বীকার করে চিকিৎসকের দাবী পোস্ট মর্টেম করলে বোঝা যাবে কি কারনে মৃত্যু।এত কম বয়সের একটা রোগীর হার্ট অ্যাটাক কি করে হল তা বুঝে উঠতে পারছে না নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষও।গাফিলতির অভিযোগ মানেনি তারা।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ