Ticker

6/recent/ticker-posts

Hooghly News: নাবালিকাকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ, শ্রীরামপুর থেকে গ্রেফতার অধ্যাপক

 হিন্দমোটরের এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা শিশুদের নিয়ে কাজ করে। সূত্রের খবর, তাদের কাছে আজ উত্তরপাড়ার এক তরুণী তার বোনকে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের ঘটনার কথা জানান।


নিউজ ডেস্ক: শ্রীরামপুর: নাবালিকাকে যৌন নিগ্রহের অভিযোগে গ্রেফতার শ্রীরামপুর কলেজের ইতিহাসের অধ্যাপক। পুলিশ সূত্রে খবর, ১৭ বছরের ওই কিশোরীর বাবা অধ্যাপকের পূর্ব পরিচিত। সম্প্রতি পড়াশোনার জন্য ছোট মেয়েকে অধ্যাপকের বাড়িতে রেখে তিনি কাজের সূত্রে মুম্বই চলে যান। অভিযোগ, সেই সুযোগে নাবালিকাকে যৌন নিগ্রহ করেন অধ্যাপক। হিন্দমোটরের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মাধ্যমে শ্রীরামপুর মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করে নাবালিকার পরিবার। আজ সকালে অভিযুক্ত অধ্যাপককে গ্রেফতার করে পুলিশ। ধৃতের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা রুজু হয়েছে।

হিন্দমোটরের এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা শিশুদের নিয়ে কাজ করে। সূত্রের খবর, তাদের কাছে আজ উত্তরপাড়ার এক তরুণী তার বোনকে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের ঘটনার কথা জানান। সূত্রের খবর, দুই বোনের মা তাদের কাছে থাকেন না। বড় বোন থাকেন কাকার বাড়িতে। মুম্বই থেকে বাবা ছোট মেয়েকে কিছুদিন ছিলেন বাবা। বাবা অধ্যাপকের বাড়িতে দিয়ে চলে যান।1


যৌন নিগ্রহের অভিযোগ: নাবালিকার অভিযোগ তার উপর যৌন নির্যাতন চালিয়েছেন ওই অধ্যাপক। গত এক সপ্তাহ ধরে অধ্যাপক তার উপর যৌন নির্যাতন করে বলে অভিযোগ। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা নাবালিকাকে নিয়ে প্রথমে উত্তরপাড়া থানায় যায়। সেখান থেকে শ্রীরামপুর মহিলা থানায় নিয়ে যায়। নাবালিকা অভিযোগ দায়ের করার পরেই পুলিশ অধ্যাপককে কলেজ ক্যাম্পাসে ম্যাক হাউস থেকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।


অভিযুক্ত যদিও তার বিরুদ্ধে তোলা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি মেয়েটির বাবা তার বন্ধুর পরিচিত। মেয়েকে পড়াশোনা করানোর জন্য তাঁর কাছে রেখে গিয়েছিল। অভিযুক্তের দাবি, তার পরিবার রয়েছে সেখানেই একসঙ্গে থাকত নাবালিকা। কেন তাঁর বিরুদ্ধে এধরনের অভিযোগ করা হল তা তার জানা নেই। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে অভিযুক্তকে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ