নিম্নচাপে লাগাতার বৃষ্টিতে ভেঙে পড়ল বাড়ি, উপড়ে গেল গাছ, রাস্তায় বড় ধস ডানকুনিতে

নিজস্ব সংবাদদাতা: বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপে নাগাড়ে বৃষ্টি। ভেঙে পড়ল বাড়ি, উপরে গেল গাছ, রাস্তায় বড় ধস ডানকুনিতে। 

কালীপুরে ব্রিজের ওঠার মুখে ধস

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জেরে তিনদিন ধরে নাগাড়ে চলছে বৃষ্টি। এই বৃষ্টিতে ইতিমধ্যেই ডানকুনি পৌরসভার বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন। এরইমধ্যে আজ সকালে জানা গেছে, গতকাল রাতে ঝাঁপিয়ে বৃষ্টিতে ১নং ওয়ার্ডের চাকুন্দিতে ভেঙে পড়েছে মাটির বাড়ি। ঘটনায় কেউ আহত না হলেও যথেষ্ট আশঙ্কায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার। এবিষয়ে ডানকুনি পৌরসভার প্রশাসক হাসিনা শবনম জানান, যাদের বাড়িতে জল প্রবেশ করেছে অথবা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তারা চাইলে স্থানীয় স্কুলে গিয়ে থাকতে পারেন। পুরসভার পক্ষ থেকে থাকা খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও যেখানে যেমন প্রয়োজন জল নিকাশির চেষ্টা চলছে।
  
চাকুন্দি মসজিদ তলায় ক্ষতিগ্রস্ত মাটির বাড়ি

পাশাপাশি ডানকুনি পৌরসভা ২০নং ওয়ার্ডের বহু প্রাচীন একটি বড় তেঁতুল গাছ ভারী বৃষ্টিতে উপড়ে যায়। স্থানীয়দের দাবি ২০০ বছর পুরনো এই গাছ। সকালে ওঠে উপড়ে যাওয়া গাছ দেখে মন খারাপ এলাকাবাসীর। 

বদরতলা পুকুর পাড়ে উল্টে প্রাচীন গাছ

এছাড়াও কালীপুরে সরস্বতী খালের উপর ব্রিজের কাজ চলছে। সেই ব্রিজের পাশেই নেমেছে বড় ধস আতঙ্কিত পথচারীরা। 

ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা পরিদর্শনে সুবীর মুখার্জি

ধসের খবর পাওয়া মাত্রই ঘটনাস্থল পরিদর্শনে আসেন হুগলি জেলা পরিষদের পূর্ত ও পরিবহন কর্মদক্ষ সুবীর মুখোপাধ্যায়। তিনি জানান, খুব দ্রুত এই ধস মেরামত করা হবে এবং আবহাওয়া ঠিক থাকলে ১৫ দিনের মধ্যেই কালীপুরে নব নির্মিত ব্রিজ জনসাধারণের জন্য পুরোপুরি খুলে দেওয়া হবে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ