দুর্গাপুর ব্যারেজের জলে প্লাবিত খানাকুল, শতাধিক গ্রামবাসীকে উদ্ধার বায়ুসেনার

নিজস্ব সংবাদদাতা: খানাকুলে বন্যা পরিস্থিতিতে দুর্গতেদের উদ্ধারের জন্য নামানো হল সেনা । আজ ভোর থেকে দুটি সেনা হেলিকপ্টারের সাহায্যে শতাধিক গ্রামবাসীদের উদ্ধার করা হয়। অবিরাম বৃষ্টিতে রূপনারায়ণ ও দ্বারকেশ্বর নদীর বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় প্লাবিত হয় নদী তীরবর্তী বিস্তীর্ণ এলাকা ৷ বিপদসীমার উপর দিয়ে বইতে থাকে নদীর জল ৷ জলের তলায় চলে যায় অধিকাংশ বাড়ি ৷ এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে রবিবার সেনা নামানোর চেষ্টা হলেও প্রতিকূল আবহাওয়ার জন্য তা করা যায়নি ৷ আজ ভোর থেকে দুর্গতদের উদ্ধারের জন্য নামানো হয় সেনা ।

বায়ুসেনার কপ্টারে চলছে উদ্ধার কাজ 

জানা গিয়েছে, খানাকুলের প্রায় চারটি গ্রাম পঞ্চায়েত জলের তলায় । তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত ধান্যঘড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত, কিশোরপুর 2 নম্বর পঞ্চায়েত ৷ এই পঞ্চায়েত এলাকায় বাঁধ ভেঙে প্রচুর বাড়ি ও ফসলের জমি নদী গর্ভে তলিয়ে গিয়েছে ৷

উদ্ধারের পর ত্রাণ শিবিরে রাখা হচ্ছে গ্রামবাসীদের 

উদ্ধারকার্যের পর সরকারিভাবে বিভিন্ন স্কুলে ত্রাণ শিবির খােলা হয়েছে । আপাতত সেখানেই রাখা হচ্ছে স্থানীয় মানুষজনকে এখনও পর্যন্ত 26 জন সেনাবাহিনীর দল এই উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। খানাকুলের বেশিরভাগ মানুষজন গৃহবন্দী । আরামবাগ মহকুমার তরফে দুর্গতদের জন্য শুকনো খাবাররের ব্যবস্থা করা হয়েছে ।


একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ