উত্তরপ্রদেশে ভোটপ্রচারে কঙ্গনা রানাউত! জল্পনা উসকে দিলেন খোদ অভিনেত্রী

 ডিজিটাল ডেস্ক: একজন অভিনেত্রী হিসাবে যথেষ্ট সফল তিনি। তাঁর ঝুলিতে একাধিক পুরস্কার রয়েছে। সম্প্রতি পেয়েছেন জাতীয় পুরস্কারও। তবে তা নিয়ে বিতর্কও রয়েছে। অনেকেরই দাবি, বিজেপি ঘনিষ্ঠ হওয়ায় জাতীয় পুরস্কার পেয়েছেন। যদিও সে বিষয়ে আমল দিতে নারাজ অভিনেত্রী। সামনেই উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচন। তাহলে কি ভোটপ্রচারে দেখা যাবে বলিউডের ‘ক্যুইনকে’, সে প্রশ্ন ক্রমশ জোরাল হচ্ছে। তারই জবাব দিলেন অভিনেত্রী।

কেন্দ্রের তিন বিতর্কিত কৃষি আইনের বিরোধিতায় দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়া কৃষক আন্দোলনকে খালিস্তানিদের সক্রিয়তার সঙ্গে তুলনা করেছিলেন কঙ্গনা রানাউত। এর জেরে দেশের একাধিক জায়গায় তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর (FIR) করা হয়েছে। শুক্রবার চণ্ডীগড়-উনা হাইওয়ে দিয়ে যাওয়ার পথে কিরাতপুরের কাছে কঙ্গনার গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখান বহু কৃষক। তাঁদের হাতে ছিল সংগঠনের পতাকা, মুখে স্লোগান। অভিনেত্রীর গাড়ি ঘিরে এই বিক্ষোভে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরে প্রচুর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনার ঠিক পরেরদিনই শনিবার শ্রীকৃষ্ণের জন্মস্থান মথুরা ভ্রমণে যান কঙ্গনা।

সেখানেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। আগামী উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে প্রচারে তাঁকে দেখা যাবে, সাংবাদিকদের এই প্রশ্নে মুখ খোলেন কঙ্গনা। তাঁর দাবি, “আমি কোনও দল করি না। যাঁরা জাতীয়তাবাদী আমমি তাঁদের হয়েই প্রচার করব।” রাজনৈতিক মহলের মতে, সরাসরি না জানালেও, তাঁর মন্তব্যেই স্পষ্ট যে, গেরুয়া শিবিরের হয়ে পথে নেমে প্রচার করবেন তিনি।

বিতর্ক যেন কখনই পিছু ছাড়ে না কঙ্গনাকে। প্রায় সব বিষয়ে চাঁচাছোলা ভাষায় নিজের মত প্রকাশ করেন অভিনেত্রী। তাঁর মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া বিতর্কের বিষয়েও এদিন সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন কঙ্গনা। তিনি বলেন, “আমি সত্যি কথা বলেছি। যাঁরা সৎ, সাহসী এবং জাতীয়তাবাদী চিন্তাধারায় বিশ্বাসী তাঁরা সেকথা জানেন।” আপাতত প্রায় সকলেরই উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনের দিকে নজর রয়েছে। আদৌ অভিনেত্রীকে ভোটপ্রচারে দেখা যায় কিনা, সেদিকে তাকিয়ে প্রায় সকলে।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্যসমূহ